‘বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ: রাজনীতির মহাকাব্য’ বই ও এর ডিজিটাল ভার্সন উদ্বোধন

| নভেম্বর 13, 2017 | 0 Comments

4bn318b2df80d7xcye_800C450দেশের খবর: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণের ওপর দেশের খ্যাতিমান লেখকদের বিশ্লেষণধর্মী লেখা ‘বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ: রাজনীতির মহাকাব্য’ শীর্ষক বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সঙ্গে বইটির ‘ই-বুক’ ও মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন উদ্বোধন করেন তিনি।

আজ (সোমবার) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকের শুরুতে বইটির মোড়ক উন্মোচন ও ডিজিটাল ভার্সন উদ্বোধন করা হয়।

‘বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ: রাজনীতির মহাকাব্য’ বইটির মুখবন্ধ রচনা করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। আর বইটিতে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের মধ্য থেকে নির্বাচিত ২৬টি বাক্যের উপর নিজের বিশ্লেষণ তুলে ধরেছেন দেশের খ্যাতিমান লেখকরা। তাদের মধ্যে আছেন, মুস্তাফা নুর-উল ইসলাম, আব্দুল গাফফার চৌধুরী, প্রফেসর ইমেরিটাস আনিসুজ্জামান, প্রফেসর মুনতাসীর মামুন, ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, ডা. এস এ মালেক, সেলিনা হোসেনসহ আরও অনেক খ্যাতিমান বুদ্ধিজীবী, শিক্ষাবিদ ও লেখক। বইটির পরিকল্পক এবং প্রচ্ছদ এঁকেছেন খ্যাতিমান চিত্রশিল্পী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের সাবেক অধ্যাপক হাশেম খান।

মুখবন্ধে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লিখেছেন, জাতির পিতার এই কালজয়ী ভাষণে ধ্বনিত হয়েছিল ‍বাংলার গণমানুষের প্রাণের দাবি। এ ভাষণে বাঙালির প্রতি পাকিস্তানি শোষকগোষ্ঠীর হত্যা, নিপীড়ন, নির্যাতনের চিত্র মূর্ত হয়ে ওঠে। একটি স্বাধীন রাষ্ট্রের অভ্যূদয়ের আবশ্যকতা ও আকাঙ্ক্ষা ছিল এ ভাষণের মূল লক্ষ্য। শত্রুর মোকাবেলায় তিনি বাঙালি জাতিকে নির্দেশ দেন, ‘তোমাদের ‍যা কিছু আছে, তাই নিয়ে প্রস্তুত থাক।’ স্বাধীনতা সংগ্রামের চূড়ান্ত পর্বে ৭ মার্চের এই ভাষণ গোটা জাতিকে ঔপনিবেশিক পাকিস্তানি শাসনের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ করে। জাতির পিতার এই সম্মোহনী ভাষণে অনুপ্রাণিত হয়ে বাঙালি ‍জাতি সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে শুরু করে।

গত ৩০ অক্টোবর বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণকে ইউনেস্কো ‘World Documentary Heritage’ ঘোষণা করেছে।

এদিকে মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আয়কর পরিচয়পত্র প্রদান করে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, এনবিআর। প্রধানমন্ত্রীর হাতে এ পরিচয়পত্র তুলে দেন এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান। ১৯৮২-৮৩ করবর্ষ থেকে নিয়মিত আয়কর প্রদান করে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করায় প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানায় এনবিআর। এছাড়া বৈঠকে আবহাওয়া আইন-২০১৭’র খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন ও রাস্তাঘাট উন্নয়ন উপকর সংক্রান্ত চিনি আইন রহিত করার সিদ্ধান্ত নেয় মন্ত্রিসভা।

Category: 1stpage, Scroll_Head_Line, দেশের খবর, শীর্ষ সংবাদ

About the Author ()

Leave a Reply