গ্রিসে রক্তের বিনিময়ে বাংলাদেশিদের গ্রিন কার্ড

| অক্টোবর 17, 2013 | 0 Comments

ইউরোবিডি কমিউনিটি সংবাদ: স্ট্রবেরি খামারে গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশিদের গ্রিন কার্ড দিয়েছে গ্রিক সরকার। রাজধানী এথেন্স থেকে প্রায় ৩০০ কিলোমিটার উত্তরে নেয়া মানোলাদার প্রত্যন্ত গ্রামে গত এপ্রিলে গুলিবিদ্ধ বাংলাদেশিদের অবশেষে বৈধ করে নিয়েছে দেশটির সরকার।

১২ অক্টোবর আনুষ্ঠানিকভাবে ৩৫ জন বাংলাদেশির হাতে গ্রিন র্কাড তুলে দেওয়া হয়। রক্তের বিনিময়ে বৈধতা পাওয়ার এক ঐতিহাসিক মুহূর্ত গত শনিবারে উৎসবমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয় প্রায় ৫ হাজার বাংলাদেশি অধ্যুষিত নেয়া মানোলাদা এলাকায়।

কৃষিনির্ভর এই অঞ্চলে বাংলাদেশিরা অত্যন্ত সুনামের সঙ্গে কাজ করে আসছে বছরের পর বছর।

কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে চলতি বছরের ২৭ এপ্রিল বকেয়া বেতনের জন্য আন্দোলনরত শ্রমিকদের ওপর খামার মালিক নিজ হাতে গুলি চালান। সেদিন অনেকে বেঁচে গেলেও আহত হন ৩৫ বাংলাদেশি।

ঘটনার পরপরই গ্রিসে দায়িত্বরত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোহাম্মদ এথেন্সের অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশনের (আয়বো) সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার ড. জয়নুল আবেদিনকে সঙ্গে নিয়ে গ্রিক সরকারের একাধিক মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন।

পরে আয়বো সেক্রেটারি জেনারেল ফ্রান্সে বসবাতরত কাজী এনায়েত উল্লাহ প্যারিসের গ্রিক দূতাবাসে স্মারকলিপি প্রদান ও ব্রাসেলসে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের সংশ্লিষ্ট বিভাগে প্রতিবাদ জানানোর পর গ্রিক প্রশাসন নড়েচড়ে বসে। চাপ দিতে থাকে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলোও।

সব মিলিয়ে অবশেষে গ্রিক প্রশাসন তাদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী বাংলাদেশিদের ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য হয়। বাংলাদেশিদের বৈধতা দেওয়া হয়।

অপরদিকে, রক্তের বিনিময়ে এই বৈধতা অর্জিত হয়েছে বলে মনে করছেন প্রথমবারের মতো স্টে পারমিট পাওয়া বাংলাদেশিরা।

দূতাবাসের কাউন্সিলর লোকমান হোসেনের পরিচালনায় স্টে পারমিট প্রদান অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আয়বো সভাপতি ড. জয়নুল আবেদিন, আয়বো সহ-সভাপতি ও এথেন্সের কমিউনিটির জাহাঙ্গীর হালম হাওলাদার, গ্রিস আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ কামরুল ইসলাম, গ্রিস বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ আলী লিটন ও সাধারণ সম্পাদক ওসমান গনি কামাল, বাংলাদেশ বিজনেস কমিউনিটি ইন গ্রিসের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমানসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

Category: Community Greece

About the Author ()

Leave a Reply